সাতচল্লিশ

একা একা ঘর সাজাই

যে ঘরে আমার থাকা হবে না জানি

তবুও সাজাই

সাজাতে হয় বলে শুধু নয়-

আমি যে ছিলাম স্বপ্নের ফেরিওয়ালা

দুয়ারে দুয়ারে এক কালে কত স্বপ্ন বিক্রি করেছি

বিনিময় হিসেবে নিতাম এক আনা দুই আনা সুখ

কেউ কেউ বাকীতে কিছু স্বপ্ন কিনতো

আমি দিয়ে দিতাম

দাম দিতে পারবে না জেনেও দিতাম

ভাবতাম, ওরা তবুও বাঁচুক কিছু স্বপ্নাশ্রয়ে

আমি হয়ত বেঁচে যাবো ওদের স্বপ্নের বুননে

কাল গড়িয়ে সন্ধ্যে যখন নেমেছিল

তৃষ্ণায় বুকের ছাতি ফেটে যাচ্ছিলো

পানি পানি করে চিৎকার করে চাইলাম

একজন এগিয়ে এলো

বললো, স্বপ্নের বিনিময়ে হলে পানি দেবো

ঝুড়ি হাতড়ে আর কোন স্বপ্ন পেলাম না

স্বপ্ন বিকিয়ে আমি নিজেই যে কখন শূন্য হয়ে গেছি

টের পাইনি

মানুষ থেকে চাতক পাখি হলাম

স্বপ্ন ফেরি করে করে নিঃস্ব হলাম

সব থেকেও আমি নিঃসঙ্গ হয়ে গেলাম

তৃষ্ণা নিয়ে ঘরে ফিরে

আমি আমার শূন্য ঘর গোছাই

এবার আর স্বপ্ন দিয়ে নয়

এক বুক হাহাকার মেশা তৃষ্ণা দিয়ে

ঘর সাজাই

জীবন সাজাই

নিজেকে সাজাই 

Author's Notes/Comments: 

২৩ অক্টোবর ২০২১

View shawon1982's Full Portfolio
saiom's picture

a wish

 

wish that you would provide more

translations

for those of us ignorant

of your beautiful language